,


আটক

শার্শায় ছাত্রীকে যৌন হয়রানির মামলায় মাদরাসার অধ্যক্ষসহ আটক- ৪

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগে মাদরাসার অধ্যক্ষসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, বাঁগআচড়া সাতমাইল আলীম মাদরাসার অধ্যক্ষ মহসীন আলী, অভিযুক্ত শিক্ষক শরিফুল ইসলাম, মাদরাসার কেরানি জামাল উদ্দিন ও অভিভাবক সদস্য পল্লী চিকিৎসক নুরুল ইসলাম।

শার্শা থানা অফিসার্জ ইনচার্জ এম মশিউর রহমান বলেন, বাঁগআচড়া সাতমাইল আলীম মাদরাসার পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীর বাবা মাদরাসার অধ্যক্ষ মহসিন আলীর কাছে মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেন শিক্ষক শরিফুলের বিরুদ্ধে।

পরে এ ব্যাপারে গত ২৭ এপ্রিল জরুরি সভা ডাকে ব্যবস্থাপনা কমিটি। এতে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক শরিফুল ইসলাম দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

কিন্তু পরবর্তীতে অধ্যক্ষ মহসিন আলী, অভিভাবক সদস্য পল্লী চিকিৎসক নুরুল ইসলাম, অফিস সহকারী জামাল উদ্দিন, অর্থের বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য মেয়ের বাবাকে চাপ সৃষ্টি করে। মেয়ের বাবা মীমাংসায় রাজি না হওয়ায় উক্ত আসামিরা তাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দেয়।

এ ঘটনায় বুধবার রাতে মেয়েটির বাবা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শার্শা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার প্রেক্ষিতে আজ রোববার অধ্যক্ষসহ অভিযুক্ত চারজনকে শার্শা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

সর্বশেষ

%d bloggers like this: