,


নলডাঙ্গায় তারাবি নামাজ পড়া নিয়ে দু-দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৭,গ্রেপ্তার ৫

নলডাঙ্গায় তারাবি নামাজ পড়া নিয়ে দু-দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৭,গ্রেপ্তার ৫

নলডাঙ্গা (নাটোর) সংবাদদাতাঃ প্রথম রমজানে তারাবি নামাজ পড়া কে কেন্দ্র করে নাটোরের নলডাঙ্গায় দু-দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৭ জন মুসল্লি আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ধামনপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।গুরুতর আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠায়।এ ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ ৫ জন কে আটক করেছে।

এলাকাবাসী ও নলডাঙ্গা থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়,মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ধামনপাড়া গ্রামে মসজিদে তারাবি নামাজের স্থানীয় ঈমামের পিছনে নামাজ পড়া নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য লোকমান হাকিম ও প্রতিপক্ষ ইউসুব হোসেন টুটুল সমর্থকদের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ের উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে তারাবি নামাজ পড়ার ব্যবস্থা করে দেয়।তারাবি নামাজ শেষে পুলিশের উপস্থিতিতে প্রতিপক্ষ ইউসুব হোসেন টুটুলসহ ১০-১৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ইউপি সদস্য লোকমান হাকিমের লোকজনের উপর হামলা করে।

এতে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।সংঘর্ষে ইউপি সদস্য লোকমান হাকিমের দুই ছেলে আকাশ (২২),কর কমিশন অফিসার মীর আরিফ (৩২) ,ভাতিজা আসাদুল হোসেন (৩৫) আহত হয়।তাদের উদ্ধার করে রাতেই নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।অপর দিকে ইউসুব হোসেন টুটুল সমর্থকদের ৪ জন আহত হয়েছে বলে দাবী করেছে।

এ ঘটনায় ইউপি সদস্য লোকমান হাকিম বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ ধামন পাড়া গ্রামের ইকবালের ছেলে শিবলি (২১),আব্দুর সবুরের ছেলে রেজা (২৪),হেজুর ছেলে নজরুল (২৩),সোহেলের ছেলে মহন (১৮) ও আকতার (৪৫) কে গ্রেপ্তার করে।এ ব্যাপারে নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান জানান,এ ঘটনায় ১৫ জন কে আসামী করে থানায় মামলা হয়েছে।

আর ৫ জন এজাহার নামীয় আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

সর্বশেষ

%d bloggers like this: