,


শেখ হাসিনা নরেন্দ্র মোদিকে ফোনে অভিনন্দন জানিয়েছেন

শেখ হাসিনা নরেন্দ্র মোদিকে ফোনে অভিনন্দন জানিয়েছেন

ডেস্ক রিপোর্টারঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করে সাধারণ নির্বাচনে তাঁর দলের বিপুল বিজয়ে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহ্সানুল করিম বাসসকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিকেল ৫ টা ৩০ মিনিটে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করেন এবং সে দেশের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে তাঁর দলের বিপুল বিজয়ে তাঁকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদিশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদিপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করে সাধারণ নির্বাচনে তাঁর দলের বিপুল বিজয়ে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহ্সানুল করিম বাসসকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিকেল ৫ টা ৩০ মিনিটে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করেন এবং সে দেশের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে তাঁর দলের বিপুল বিজয়ে তাঁকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

শেখ হাসিনা ফোনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বলেন, ‘আপনার গতিশীল নেতৃত্বে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) বিপুলভাবে জয়লাভ করায় বাংলাদেশের সরকার, জনগণ, আমার দল এবং ব্যক্তিগতভাবে আমি ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

পাচঁ মিনিটের এই টেলিফোন সংলাপে প্রধানমন্ত্রী এই বিজয়কে ঐতিহাসিক উল্লেখ করে বলেন, ‘এই বিজয়ে আপনার প্রতি ভারতের জনগণের বিশ্বাস ও আস্থার প্রতিফলন ঘটেছে।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘দক্ষিণ এশিয়ার জনগণ আপনার এই বিজয়ে খুশি হবে এবং অঞ্চলের জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবে।’

প্রেস সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সফরে আসার আমন্ত্রণ জানান এবং তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

এর আগে শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাঠানো এক অভিনন্দন বার্তায় বলেন, বাংলাদেশ প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে বহুমুখী সম্পর্ককে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়। এটি হয়েছে পারস্পরিক আস্থা ও শ্রদ্ধাবোধের ভিত্তিতে ।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে সমর্থন প্রদানে ভারতের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। তিনি বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক ইতিমধ্যেই একটি সুপ্রতিবেশী রাষ্ট্রের মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। ভবিষ্যতে এই সম্পর্ক আরও উচ্চতর এক নতুন মাত্রায় নিয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ভারতের জনগণের অব্যাহত সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সুস্বাস্থ্য, অব্যাহত সাফল্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর অভিনন্দন বার্তায় বলেন, ‘মান্যবর আপনার সুবিধামতো সময়ে বাংলাদেশে আপনাকে অভ্যর্থনা জানাতে আমি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।’

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: