,


তাড়াশে চুরি আতঙ্কে রাত জেগে পাহাড়া
তাড়াশে চুরি আতঙ্কে রাত জেগে পাহাড়া

তাড়াশে চুরি আতঙ্কে রাত জেগে পাহাড়া

স্টাফ রিপোর্টারঃ গরু চুরির ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় রাত জেগে পাহারা বসিয়েছেন গ্রামবাসীরা। সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ উপজেলার দেশিগ্রাম ইউনিয়নে চলতি মাসে বলদীপাড়া গ্রাম থেকে ৬টি গরু চুরি হওয়ার পর চরম উৎকন্ঠা বিরাজ করছে বলদীপাড়াসহ বিভিন্ন গ্রামবাসীদের মাঝে। বিশেষ করে খামারীরা নিজেদের গরু নিয়ে রয়েছেন চুরি আতংকে। তবে বেশ কয়েকটি চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলেও এখন পর্যন্ত কোন গরু উদ্ধার বা এর সাথে সম্পৃক্ত কাউকে ধরতে পারেনি পুলিশ।

সরেজমিনে উপজেলার বলদীপাড়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, গ্রামের বেশ কিছু মানুষ ঝড়-বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে হাতে লাঠি নিয়ে পুরো গ্রামের রাস্তা ঘাট পাহারা দিচ্ছেন। সঙ্গে বাজাচ্ছেন বাঁশি। সারারাত পাহারা দেয়ার পর সকালে সূর্য উদয়ের সাথে সাথে বাড়ি ফিরছেন সবাই। এতে করে দৈনন্দিন কাজকর্মে অসুবিধা হলেও চুরি রোধে অনেকটা বাধ্য হয়ে পাহারা দিচ্ছেন তারা।

বলদীপাড়া গ্রামের বেশ কয়েকজন জানান, অনেকেই বিভিন্ন সংস্থা থেকে ঋণ করে গরু পালন করছেন। তাদের এই সম্পদ চুরি হয়ে গেলে রাস্তায় বসতে হবে। যেভাবে গরু চুরি হচ্ছে তাতে সবাই আতঙ্কের মধ্যে রাত পার করছেন। চুরি ঠেকাতে বাধ্য হয়ে গ্রামের সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতি রাতে পালা করে সারারাত গ্রাম পাহারা দিচ্ছেন বলে জানান তারা।

উপজেলার বলদীপাড়া গ্রামের সুলতান মাহমুদ বলেন, পাহারা দেওয়ার কথা থানা থেকে বলার পর থেকে আমাদের গ্রামে ১৫ দিন ধরে পাহারা দিচ্ছি। বাড়ি বাড়ি ভাগ করে ১২ জনের গ্রুপ করে পাহার দিচ্ছি। ফলে, আমাদের তেমন কোনো সমস্যা হচ্ছে না। এতে চুরি না হওয়ায় আমরা উৎসাহের সঙ্গে পাহারার ব্যবস্থা করছি।

ওই গ্রামের আব্দুর রহিম বলেন, দল ভাগ করে পাহারা দেওয়ার ফলে এক রাতে পাহারা দিলে ১৫ দিন পর আবার পাহারা দিতে হয়। ফলে এলাকার কোনো লোকই পাহারা দিতে না করছে না। রাত ১০টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত পাহারা দেওয়া হচ্ছে।

গরু চুরি হওয়ার কথা স্বীকার করে তাড়াশ থানার (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, কয়েকটি গ্রামে চুরি হওয়ায় সেখানে আমরা গ্রাম পুলিশ, কমিউনিটি পুলিশ এবং টহল পুলিশ বৃদ্ধি করা হয়েছে। গ্রামবাসী যে উদ্দ্যোগ নিয়েছে নিসন্ধেহে এটি ভালো কাজ। চোর চক্রকে ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। আশা করছি খুব শিগগিরই এই চক্রকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে সক্ষম হবো।

 

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: