,


বিরিয়ানির দিকেও চোখ যায় না শ্রদ্ধার
বিরিয়ানির দিকেও চোখ যায় না শ্রদ্ধার

বিরিয়ানির দিকেও চোখ যায় না শ্রদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্টারঃ অভিনয়শিল্পীদের কত কিছুই না করতে হয়! চরিত্রের জন্য কখনো তাঁকে মোটা, কখনো হতে হয় চিকন। তাই প্রতিদিনের পাতেও থাকে আলাদা আলাদা খাবার। অভিনয়, নাচ, গান—তিন দিকেই তুখোড় বলিউড অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুর। এবার জানা গেল খাবার নিয়ে তাঁর কড়া নিয়ম মানার খবরও। সম্প্রতি অভিনয় করেছেন সাহো, স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি ও চিচোড়ে নামের তিনটি ছবিতে। তিন ছবিতেই বেশ আলাদা চরিত্র শ্রদ্ধার।

চরিত্রায়নের জন্য লোভ সামলে একদম ডায়েটে মনোযোগী ছিলেন নাকি শক্তি কাপুরকন্যা। সাহোর শুটিংয়ের সময় শ্রদ্ধার ফিটনেস প্রশিক্ষক ও পুষ্টিবিদ ছিলেন মাহেক নিয়ারা। তিনি জানিয়েছেন, এই ছবির শুটিংয়ে শ্রদ্ধার খাবার তালিকায় ছিল বেশ পর্যাপ্ত পরিমাণে চর্বি, মাঝারি প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট–জাতীয় খাবার। তবে সবজি খেয়েছেন প্রচুর, প্রোটিনের জন্য ছিল ডিম, মাছ ও সালাদ। সাহো ছবিতে শ্রদ্ধাকে দেখা গেছে একজন পুলিশের চরিত্রে। তাই ফিটনেস ছিল জরুরি ব্যাপার। নিয়মমাফিক খাওয়া–দাওয়ার পাশাপাশি ব্যায়ামাগারেও যেতে হয়েছে তাঁকে।

এ ছাড়া স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি ও চিচোড়ের জন্য শ্রদ্ধাকে বেশ কসরত করতে হয়েছে। কারণ, দুটো ছবিতেই নাচ আছে। নাচের জন্য প্রচুর শক্তি সঞ্চয়ের দরকার হয়। এ ছাড়া চুলের বিষয়েও বেশ যত্ন নিতে হয়েছে তাঁকে। এই ছবির শুটিংয়ে শ্রদ্ধাকে প্রচুর ইলেকট্রোলাইট পানি খেতে হয়েছে, যাতে ডিহাইড্রেশন না হয়। লন্ডন ও দুবাইয়ে শুটিংয়ের সময় রাতের খাবারে শ্রদ্ধা খেতেন স্যামন মাছ। এ ছাড়া রাতে স্যুপও ছিল খাবার টেবিলে। সকালের নাশতায় থাকত ডিম ও সালাদ।

শ্রদ্ধা নিজের ফিটনেস ধরে রাখতে কড়া নিয়ম মানেন। এমনকি বিরিয়ানির মতো খাবার পাশে থাকলেও নিজের রুটিন খাবারের দিকেই নাকি চোখ থাকে শ্রদ্ধার।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: