,


‘যখনই সময় পেয়েছি, ছুটে গেছি বিরাটের কাছে’
‘যখনই সময় পেয়েছি, ছুটে গেছি বিরাটের কাছে’

‘যখনই সময় পেয়েছি, ছুটে গেছি বিরাটের কাছে’

ডেস্ক রিপোর্টারঃ ২০১৮ সালে বলিউড তারকা আনুশকা শর্মার তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ‘পারি’, ‘সুই ধাগা’ ও ‘জিরো’। ৩৫ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ‘সুই ধাগা’ বক্স অফিসে তুলে এনেছে ১২৫ কোটি রুপি। আর ২১ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ‘পারি’ সব মিলিয়ে ৪০ কোটি রুপি ব্যবসা করতে পেরেছে। তবে এই দুটো ছবিতে আনুশকার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। কিন্তু ২০০ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ‘জিরো’ বক্স অফিস ও সমালোচক সবার কাছ থেকে পেয়েছে শূন্য। বছরের সব থেকে ফ্লপ ছবিগুলোর একটি এই ‘জিরো’।

‘জিরো’-ই এখন পর্যন্ত আনুশকা শর্মার শেষ ছবি। এর মধ্যে পেরিয়ে গেছে ছয় মাস। নতুন কোনো ছবিতে যুক্ত হওয়ার খবর আসেনি তাঁর বা ‘জিরো’র সহ-অভিনেতা শাহরুখ খানের। শাহরুখ তো আগেই জানিয়েছেন, বলিউডকে জীবনের অনেকটা সময় বিলিয়ে দিয়েছেন। আর এদিকে ছেলেমেয়েরা বড় হয়ে গেছে। তিনি নাকি টেরই পাননি। এবার তাই ছোট ছেলে আব্রাম খানের বড় হওয়া দেখবেন আর বড় দুই সন্তানকেও সময় দেবেন।

এত দিন পর মুখ খুললেন আনুশকা। ২০১৩ সাল থেকে ক্রিকেটার বিরাট কোহলির সঙ্গে তাঁর প্রেম। এর ভেতরে মান-অভিমানও যে দু-একবার হয়নি, তা নয়। সেসব ভুলে অবশেষে সুদূর ইতালিতে ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর বিয়ে করেন বলিউড তারকা আনুশকা শর্মা ও ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিয়ের পর ভারতে এসে দিল্লি ও মুম্বাইয়ে দুটি বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন তাঁরা। এরপরই লেহেঙ্গা, শাড়ি খুলে কাজে নেমে পড়েছেন। পরপর তিনটি ছবি করে একেবারে হাঁপিয়ে উঠেছিলেন তিনি। তাই ছুটি নিয়ে বলিউড থেকে দূরে গিয়ে সময় দিয়েছেন বিরাট কোহলিকে।

ফিল্মফেয়ার ডটকমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমি আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধুকে বিয়ে করেছি। আমি তাঁকে গভীরভাবে ভালোবাসতে পেরেছি, শুধু একজন অসাধারণ মানুষ বিরাটকে। ওর সঙ্গে দেখা হওয়ার পর আমার মনে হয়েছে, ও এমন একজন মানুষ যে আমাকে পুরোপুরি বুঝতে পারে। তখন আর শব্দের প্রয়োজন পড়ে না। আমরা যখন একসঙ্গে থাকি, পৃথিবীর আর সবকিছু থেমে যায়। আমি যখন ওর সঙ্গে থাকি, সেই মুহূর্তে আমিই পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী প্রাণী।’

বলিউড থেকে তাঁর সাময়িক এই বিরতি অনেকেই অন্যভাবে দেখেছেন। শোনা যায় নানান গুঞ্জনও। সব ছাপিয়ে আনুশকা শর্মা নিজেই জানালেন সেই কারণ। তিনি বলেছেন, ‘আমি সচেতনভাবেই বলিউড থেকে বিরতি নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। “জিরো”র পর আমি কয়েক মাসের জন্য ছুটি নিতে চেয়েছিলাম। আমি একটার পর একটা কাজ করে যাচ্ছিলাম। কাজের ফাঁকে যখনই একটু সময় মিলেছে, আমি ছুটে গেছি বিরাটের কাছে।’

আনুশকা এও জানান, তিনি কাজ আর বিরাট, দুজনকেই ভালোবাসেন। তাই দুটোই ব্যালান্স করে চলার চেষ্টা করেছেন। যখনই কাজের পাল্লা বেশি ভারী হয়ে গেছে, তখনই বলিউডকে টাটা বলে ছুটেছেন স্বামী আর সঙ্গসারকে সময় দিতে। আনুশকা আরও বলেন, ‘আমি কাজ করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছিলাম। তাই আমি আমার টিমকে বলে দিয়েছিলাম, আপাতত দুই মাস সব “না”। এমনকি এই সময়ে আমি কোনো বইও পড়ব না। সৃজনশীল মানুষদের নিজেকে সময় দেওয়া জরুরি। হ্যাঁ, অবশ্যই, কাজের যেমন চাপ থাকে। কাজ না করারও একটা চাপ থাকে। প্রতিনিয়ত সবাই জিজ্ঞেস করে, কবে ছবি করছেন? কোন ছবিতে সাইন করেছেন?’

তবে এটুকু বললেও ওই যে সর্বশেষ প্রশ্ন, কবে ছবি করবেন বা বড় পর্দায় কবে ফিরবেন, সেই প্রশ্ন কিন্তু তুলেই রেখেছেন। ছুটি কবে ফুরোবে, তা তাই জানা যায়নি। বোধ হয় বিরাট কোহলিকে এখনো সময় দেওয়া শেষ হয়নি তাঁর।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: