,


সৈয়দপুরের সংগঠন থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটির প্রসংশনীয় উদ্যোগ

সৈয়দপুরের সংগঠন থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটির প্রসংশনীয় উদ্যোগ

সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ অনলাইনভিক্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটি” উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী মৌসুমী আক্তার মৌ এর জন্য সংগৃহিত অর্থ তাঁর সুচিকিৎসায় ব্যয় করা যায়নি। তাঁর আগে তিনি সবাইকে ফেলে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন। এ অবস্থায় তাঁর চিকিৎসার জন্য সংগ্রহ করা অর্থ সর্বশান্ত হওয়া পরিবারের কাছে হস্তান্তর হয়। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সৈয়দপুর উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ওই অর্থ তাঁর বাবার এম এ লতিফের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার কবিরপুর গ্রামে কৃষক এম. এ. লতিফ। তাঁর তিন মেয়ের মধ্যে দ্বিতীয় ছিল মৌসুমী আক্তার মৌ। তাঁর বয়স হয়েছিল ২৪ বছর। অত্যন্ত মেধাবী ছাত্রী মৌসুমী চলতি বছর কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নেয়।
টিউশন করে নিজের লেখাপড়ার খরচ যোগানসহ ছোট বোনের পড়ার খরচ চালাতে কৃষক বাবাকে সাহায্য-সহযোগিতা করে আসছিলেন তিনি। এমতাবস্থায় তাঁর শরীরে সিস্টেমিক লিউপাস ইরিথেমাটোসাস (এসএলই) ভাইরাস ধরা পড়ে। কৃষক বাবা তার সমস্ত সহায় সম্বল বিক্রি করে আদরের মেয়েকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করে আসছিলেন। তাঁর চিকিৎসা আর্থিক সহযোগিতার জন্য বিভিন্ন পত্র পত্রিকায়ও তাকে নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। মেধাবী মৌকে নিয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি নজরে আসে অনলাইনভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটি” সদস্যদের। ফেসবুকভিত্তিক সংগঠন ” থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটি” এর ফাউন্ডার এইচ বি রিতা। তিনি মূলতঃ আমেরিকান প্রবাসী। বিদেশে অবস্থান করলেও তিনি সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে দেশের পথশিশুদের জন্য ঈদে নতুন পোশাক, শীত বস্ত্র, অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা দিয়ে থাকেন। এর পাশাপাশি তারা মেধাবী অস্বচ্ছল পরিবারের ছেলেমেয়েদের লেখপড়ায় নানাভাবে আর্থিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। এই ধারাবাহিকায় এবার তারা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী অসুস্থ মৌসুমী আক্তার মৌ এর সুচিকিৎসায় সহায়তা দিতে উদ্যোগী হন। তার চিকিৎসার জন্য অর্থ সংগ্রহে নামেন সংগঠনের সদস্যরা। আর এরই মধ্যে চলতি বছরের গত ৭ জুন মেধাবী মৌ বাবা-মায়ের সকল চেষ্টা ব্যর্থ করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান
এ অবস্থায় অনলাইনভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটি পক্ষ থেকে মৌসুমী আক্তার মৌয়ের সুচিকিৎসা জন্য সংগৃহিত অর্থ তাঁর সহায় সম্বলহারা পরিবারের কাছে হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়। গতকাল (বৃহস্পতিবার) সকালে সৈয়দপুর উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সিস্টেমিক লিউপাস ইরিথেমাটোসাস (এসএলই) ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মৌসুমী আক্তার মৌ এর পরিবারের কাছে নগদ ৫০ হাজার টাকা হস্তান্তর করা হয়েছে।
সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এস. এম. গোলাম কিবরিয়া মৃত্যুবরণকারী ছাত্রী মৌয়ের বাবা এম. এ লতিফের হাতে ওই টাকা তুলে দেন।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার, ফেসবুকভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘থিংকিং দ্যা হিউম্যানিটির হিউম্যান রিসোর্স এন্ড ফাইন্যান্স অর্গানাইজার জিনাত আরা জিতু, সদস্য রিয়াজুল আলম রিয়েল, নিশাদ রায়হানা ইতু, ইমজামাউল ইসলাম, মো. আমির হোসেন ও মো. রবিউল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: