,


তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের ঈদ বোনাস না দেওয়ায় র্গামেস ব্যাবসায়ীকে পিঠিয়ে রক্তাক্ত জখম

তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের ঈদ বোনাস না দেওয়ায় র্গামেস ব্যাবসায়ীকে পিঠিয়ে রক্তাক্ত জখম

নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধিঃ আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হিজড়াদের ঈদ বোনাস হিসেবে চাহিদা অনুযায়ী চাঁদা না দেওয়ায় নাটোরের নলডাঙ্গায় সামাদ দেওয়ান নামের এক ব্যবসায়ীকে বসার কাঠের টুল দিয়ে মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করেছে হিজড়াদের দল।শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নলডাঙ্গা বাজারের ভিআইপি রোডের দেওয়ান র্গামেসের দোকানে এ ঘটনা ঘটে।খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে অভিযুক্ত ৫ জন হিজড়াদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।আহত সামাদ দেওয়ান (৫০) কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বেসরকারি একটি হাসপাতালে ভুর্তি করে।অভিযুক্ত ৫ হিজড়ারা হলেন,নাটোরের লাজুক,সেতু,আক্কাস আলী ওরেফে সজনী,ঝর্ণা ও পপি।
নলডাঙ্গা থানা পুলিশ ও ব্যবসায়ীরা জানান,শনিবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার ভিআইপি রোডে অবস্থিত দেওয়ান র্গামেসের মালিক সামাদ দেওয়ানের কাছে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হিজড়াদের দল ঈদুল আযহা উপলক্ষে ঈদ বোনাস দাবী করে।দেওয়ান গার্মেসের মালিক তাদের ৫টাকা দিলে তা না নিয়ে ফেলে দেয় এবং জোর করে ক্যাশ থেকে আরোও টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে বাধা দিলে বসার কাঠের টুল দিয়ে দোকান মালিক সামাদ দেওয়ানের মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।আহত সামাদ দেওয়ান কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভুর্তি করেন।পরে খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে অভিযুক্ত ৫জন হিজড়াদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।আহত সামাদ দেওয়ান জানান,নাটোরের ৫ জন হিজড়াদের দল আমার দোকানে এসে ঈদের দাবী করে আমি ৫ টাকা বের করে তাদের হাতে দিই।তারা ৫ টাকা না নিয়ে আরোও টাকার দাবী করে আমার ক্যাশ বাক্স থেকে জোর টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে আমি বাধা দিলে দোকানের থাকা বসার কাঠের টুল দিয়ে আমার মাথায় আঘাত করে।তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হিজড়াদের দলনেতা আক্কাস আলী ওরেফে সজনী জানান,আমরা দুই ঈদ ও ১ পহেলা বৈশাখে বোনাস হিসেবে বিভিন্ন দোকান,ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য নিয়ে থাকি।সেই অনুযায়ী ভিআইপি রোডের ওই দোকানে গেলে আমাদের ৫ টাকা দেয় আমরা তা না নিয়ে আরোও ৫ টাকার দাবী করলে তারা আমাদের দলের লাজুক কে লাঠি দিয়ে প্রথমে আঘাত করলে দুই পক্ষের হাতাহাতি হয়েছে।এ ব্যাপারে নলডাঙ্গা থানার এসআই আনিছুর রহমান জানান,এ ঘটনায় দুই পক্ষের সাথে আলাপ আলোচনা করে আপোষ মিমাংশা করে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: